শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ১২:৪৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কুমিল্লা আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের উপপরিচালক নুরুল হুদা স্থানীয় সাংবাদিকের মোবাইল ফোনটি আটক রাখার অভিযোগ কুমিল্লায় একটি বাড়ি থেকে ৬শত পিস ইয়াবাসহ একজন মাদককাবারি আটক কুমিল্লায় কোচিং সেন্টারের শিক্ষার্থীদের ঘুমের ঔষধ খাইয়ে অজ্ঞান করে শারীরিক সর্ম্পক স্থাপন করার অভিযোগে একজন আটক র‍্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে প্রধান আসামি রাজু নিহতঃ কুমিল্লায় সাংবাদিক মহিউদ্দিন সরকার নাঈমের হত্যা মামলার আসামি ঈদকে সামনে রেখে কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা বেপরোয়া ভাবে নগরীর বিভিন্ন স্থানে ছিনতাইয়ের অভিযোগ কুমিল্লায় গাঁজাসহ এক মাদক ব্যবসায়ী আটক কুমিল্লায় পৃথক র‌্যাবের অভিযানে ৩ মাদক ব্যবসায়ী সাথে ৬ শত ফেন্সিডিল উদ্ধার কুমিল্লার ধুর্মপুর রেলওয়ে এলাকায় একপক্ষের হামলায় রবিন আহত কুমিল্লায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা-ভাংচুর ও লুটপাট কুমিল্লায় মাদক ব্যবসায়ী আবু জাফর গ্রেফতার
নোটিশ :

কুমিল্লায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা-ভাংচুর ও লুটপাট

বিশেষ প্রতিনিধি,কুমিল্লাঃ

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে পূর্ব বিরোধের জেরে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা ও একটি নবনির্মিত সেমি-পাকা বিল্ডিং ভাংচুরের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় হাবিবুর রহমান বাদী হয়ে পাঁচ জনের নাম উল্লেখ করে চৌদ্দগ্রাম থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার সকালে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের উপজেলার ঘোলপাশা ইউনিয়নের বাবুচি বাজারে।

থানা সূত্রে জানা যায়, মামলা দায়েরকৃত অভিযোগে ভুক্তভোগি হাবিবুর রহমান উল্লেখ করেন, ভাংচুরকৃত ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও সেমি-পাকা বিল্ডিং ঘরটি আমি পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া সম্পত্তির উপর নির্মাণ করেছি। বিবাদী সৈকত হোসেন, মাছুম বিল্লাহ, আবদুল মান্নানের সাথে সম্পত্তি নিয়ে পূর্ব বিরোধ চলে আসছে। শুক্রবার সকালে তাদের নেতৃত্বে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিরা বাজারে অবস্থিত মাইশা টিম্বার এন্ড স’মিলে হামলা চালিয়ে দোকানঘর ভাংচুর করে এবং দোকানে থাকা মূল্যবান ফার্ণিচারসহ মালামাল লুট করে নেয়। এ সময় তারা বিরোধকৃত সেমি-পাকা বিল্ডিংটির চারদিকের দেয়াল, দরজা-জানালা হ্যামার দিয়ে গুড়িয়ে দেয়। এছাড়া ফার্ণিচার দোকানের ক্যাশে রক্ষিত দুই লক্ষ টাকাসহ দামী ফার্ণিচার লুট করে নিয়ে যায়। এতে প্রতিষ্ঠানের প্রায় দশ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে হাবিবুর রহমান দাবী করেন।বিবাদী সৈকত হোসেন বিষয়টি অস্বীকার করে বলেছেন, ভাংচুরের ঘটনা সম্পর্কে আমি কিছুই জানি না।

এবিষয়ে চৌদ্দগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শুভ রঞ্জন চাকমা বলেন, অভিযোগের বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। সত্যতা প্রমাণিত হলে দোষিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  



ফেসবুকে আমরা