রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ১১:১৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর সোহেলের মৃত্যু নিশ্চিত করতে কাঁপলে গুলি করে খুনি শাহ আলম;মাথায় গুলি করে খুনি জেল সোহেল দেবিদ্বার থানার পুলিশের অভিযানে এক মাদক ব্যাবসায়ী গ্রেপ্তার কুমিল্লায় জোড়া খুনের রহস্য উন্মোচন করা জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর একাধিক টিম তদন্ত করে আসামিদের গ্রেফতার করার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের ১৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলার সৈয়দ মোহাম্মদ সোহেল এর জানাজা নামাজ আজ বাদ যোহর নামাজের পর নগরীর পাথুরিয়া পাড়া জামে মজিদ প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হচ্ছে কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের ১৭নং ওর্য়াড কাউন্সিলার সৈদয় মোহাম্মদ সোহেলসহ আ’লীগের নেতা বাবু হরিপদ এর উপর সন্ত্রাসীদের গুলিতে দু’জনের মৃত্যু; নগর আ’লীগের সভাপতি ও কুমিল্লা -৬ সংসদীয় আসনের এমপি আ ক ম বাহারউদ্দিন বাহার নিহত দু’পরিবারের সমবেদনা জ্ঞাপন ও শোক প্রকাশ কুমিল্লায় ব্যবসায়ীকে অপহরণের পর মুক্তিপর চাওয়া তিনজন অপরাধীকে গ্রেফতার; ব্যবসায়ীকে উদ্ধার কুমিল্লায় বেশিরভাগ মুদি দোকানে মিলছে জীবনরক্ষাকারী ঔষুধের অতিরিক্ত দাম রাখার অভিযোগ জাগ্রত মানবিকতার আয়োজনে রক্তের গ্রুপ নির্নয় ও রক্তদাতা সংগ্রহনে আলোচনা সভা কুমিল্লা নগরের ৩ ওয়ার্ডের সড়কের নামের ফলক উন্মোচন -এমপি বাহার কক্সবাজারে ইকবালকে গ্রেপ্তার; আজ ১২টায় কুমিল্লা পুলিশ কার্যালয়ে পৌঁছায়
নোটিশ :

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখা ব্যক্তি শনাক্ত; কুমিল্লায় ৯১ জনের নাম উল্লেখ করে মামলায় ৭০০ জনকে অজ্ঞাত আসামি; ৪৪ জনকে গ্রেফতার

সাইফুল ইসলাম শিশির, কুমিল্লাঃ

কুমিল্লার পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন রাখা ব্যক্তিকে সিসি টিভি ফুটেজ দেখে শনাক্ত করা হয়েছে। ওই ব্যক্তির নাম ইকবাল হোসেন। ইকবাল হোসেন কুমিল্লা মহানগরীর সুজানগর এলাকার নূর আহম্মদ আলমের ছেলে। তাকে গ্রেফতারে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর একাধিক ইউনিট কাজ করছে। এখন পর্যন্ত কুমিল্লা জেলা পুলিশের উদ্যোগে বিভিন্ন থানায় আটটি মামলায় ৯১ জনের নামে আসামি করে ৭০০ জনকে অজ্ঞাত আসামী করে এবং ৪৪জনকে অপরাধের দায়ে গ্রেফতার করে পুলিশ।

বুধবার রাতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, ভিডিওটি আমি দেখেছি। এতে দেখা যাচ্ছে এক যুবক মসজিদ থেকে কোরআন শরিফ নিয়ে রাস্তার দিকে আসছে। কিছুক্ষণ পর (প্রায় এক ঘণ্টা পর) দেখলাম তার হাতে কোরআন শরিফ নেই। হনুমান ঠাকুরের গদা হাতে নিয়ে তিনি ঘোরাঘুরি করছেন।
মন্ত্রী আরও বলেন, আমি গতকালও বলেছি তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। আমাদের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। ওই যুবক মোবাইল ব্যবহার না করার কারণে তাকে ট্র্যাক করা যাচ্ছিল না। এখন পর্যন্ত তিনি ঘন ঘন স্থান পরিবর্তন করছেন। আমরা তাকে নজরদারিতে রেখেছি। যে কোনো সময় তাকে গ্রেফতার করা হবে।
এব্যাপারে কুমিল্লা জেলা পুলিশের ডিআইও-১ মো. মনির আহমেদ বলেন, সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা যায় নানুয়ার দিঘির উত্তর-পূর্বদিকে সড়কে রাত সোয়া ৩টার দিকে এক যুবক হনুমান ঠাকুরের গদা হাতে নিয়ে ঘোরাঘুরি করছেন। ওই যুবককে শনাক্ত করা হয়েছে। তিনি যে মণ্ডপে কোরআন শরিফ রেখেছেন সে বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নিশ্চিত হয়েছে। তাকে এখনো গ্রেফতার করা যায়নি। দ্রুত সময়ের মধ্যে তাকে গ্রেফতারে পুলিশের একাধিক টিম কাজ করছে।ঘটনার রাতের দুটি ফুটেজ বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, ১৩ অক্টোবর রাত ২টা ১০ মিনিটের দিকে মসজিদ থেকে ওই যুবক কোরআন শরিফ হাতে নিয়ে বের হয়ে আসছেন। এরপর রাত ২টা ১১ মিনিটে তিনি মসজিদ থেকে মূল সড়কে উঠে মন্দিরের দিকে হেঁটে যান। সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায়, রাত ৩টা ১২ মিনিটে যুবকটির হাতে কোরআন শরিফ নেই। তিনি এসময় গদা কাঁধে নিয়ে মন্দিরের পাশে পুকুরপাড়ের রাস্তায় হাঁটাহাঁটি করছিলেন।গত ১৩ অক্টোবর কুমিল্লা মহানগরীর নানুয়া দিঘিরপাড় পূজামণ্ডপে কোরআন রাখা নিয়ে মন্দিরে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বিভিন্ন থানায় আট মামলায় ৭৯১ জনকে আসামি করা হয়ে। এরমধ্যে কোতোয়ালী মডেল থানায় পাঁচটি, কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানায় দুটি ও দাউদকান্দি থানায় একটি মামলা হয়েছে। ৯১ জনের নাম উল্লেখ করে মামলায় ৭০০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে। এ পর্যন্ত ৪৪ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  



ফেসবুকে আমরা