রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ১১:২০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর সোহেলের মৃত্যু নিশ্চিত করতে কাঁপলে গুলি করে খুনি শাহ আলম;মাথায় গুলি করে খুনি জেল সোহেল দেবিদ্বার থানার পুলিশের অভিযানে এক মাদক ব্যাবসায়ী গ্রেপ্তার কুমিল্লায় জোড়া খুনের রহস্য উন্মোচন করা জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর একাধিক টিম তদন্ত করে আসামিদের গ্রেফতার করার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের ১৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলার সৈয়দ মোহাম্মদ সোহেল এর জানাজা নামাজ আজ বাদ যোহর নামাজের পর নগরীর পাথুরিয়া পাড়া জামে মজিদ প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হচ্ছে কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের ১৭নং ওর্য়াড কাউন্সিলার সৈদয় মোহাম্মদ সোহেলসহ আ’লীগের নেতা বাবু হরিপদ এর উপর সন্ত্রাসীদের গুলিতে দু’জনের মৃত্যু; নগর আ’লীগের সভাপতি ও কুমিল্লা -৬ সংসদীয় আসনের এমপি আ ক ম বাহারউদ্দিন বাহার নিহত দু’পরিবারের সমবেদনা জ্ঞাপন ও শোক প্রকাশ কুমিল্লায় ব্যবসায়ীকে অপহরণের পর মুক্তিপর চাওয়া তিনজন অপরাধীকে গ্রেফতার; ব্যবসায়ীকে উদ্ধার কুমিল্লায় বেশিরভাগ মুদি দোকানে মিলছে জীবনরক্ষাকারী ঔষুধের অতিরিক্ত দাম রাখার অভিযোগ জাগ্রত মানবিকতার আয়োজনে রক্তের গ্রুপ নির্নয় ও রক্তদাতা সংগ্রহনে আলোচনা সভা কুমিল্লা নগরের ৩ ওয়ার্ডের সড়কের নামের ফলক উন্মোচন -এমপি বাহার কক্সবাজারে ইকবালকে গ্রেপ্তার; আজ ১২টায় কুমিল্লা পুলিশ কার্যালয়ে পৌঁছায়
নোটিশ :

কুমিল্লায় গৃহবধূকে নির্যাতনের অভিযোগে একজন নারীকে গ্রেফতার

সাইফুল ইসলাম শিশির, কুমিল্লাঃ

কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলাার বরকামতা ইউনিয়নের আশরা পূর্ব পাড়া আলী আশ্রাফের স্ত্রী মোসাম্মৎ সালমা বেগম(৪০) নামে এক গৃহবধূকে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে।গত শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টায় এ ঘটনাটি ঘটে। পরে নির্যাতনের শিকার সালমা এর পিতা আব্দুল বারেক দেবিদ্বার থানার উপস্থিত হয়ে দু’জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করা হয়। মামলাটি তদন্ত করে একজন নারী আসামি গ্রেফতার করে থানার পুলিশ। প্রধান আসামি লিজাকে কুমিল্লা আদালতে মাধ্যমে কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারে প্রেরণ করা হয়।

জানা যায়,সালমা বেগম ও লিজা বেগম দুজনে সম্পর্কে জ্যা (দেবরের স্ত্রী)। লিজা বেগম আলী আশ্রাফের আপন ছোট ভাইয়ের স্ত্রী।বিয়ের পর থেকে প্রায় সময় দুই জ্যা বিভিন্ন খুঁটিনাটি বিষয় নিয়ে প্রায়ই ঝগড়া করতো।কয়েকবার লিজা বেগম সালমা বেগমকে মারধর করেছে বলেও জানায় সালমার দশম শ্রেনীতে পড়ুয়া ছেলে হোসাইন।ঘটনার দিন গত শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টায় বাড়ির উঠানে ডিমের খোসা ফেলাকে কেন্দ্র করে লিজা বেগম সালমা বেগমের সাথে ঝগড়া শুরু হয়। এনিয়ে দুই জনের মধ্য বাকবিতণ্ডা শুরু করে।দু’জনের শশুড় রফিকুল ইসলাম দু’জনকে ঝগড়া থামাতে ধমক দিয়ে গরুর খামারে চলে যান।সাথে সাথে সালমা বেগমের ছেলে হোসেন তার মাকে টেনে ঘরে নিয়ে যান।কিছুক্ষণ পর সালমা বেগম বের হয়ে আসলে দু’জনের মাঝে আবার ঝগড়ার সৃষ্টি হয়।ঝগড়ার কিছুক্ষনের মধ্যে ছোট জ্যা লিজা বেগম হটাৎ করে গ্যাসের চুলায় উত্তপ্ত গরম করা পানি সালমা বেগমের শরীলে ঢেলে দিলে মুহুর্তে সালমা বেগমের শরীল ঝলসে যায়।চিৎকার শুনে তাদের শশুড় রফিকুল ইসলাম দৌড়ে এসে সালমাকে ধরে দেখেন শরীলের চামড়া উঠে যাচ্ছে। সাথে পরিবারের লোকজন ও প্রতিবেশীদের সহযোগীতায় কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়।সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়েছে।অভিযুক্ত লিজা বেগম সৌদি প্রবাসী রাসেলের স্ত্রী ও বুড়িচং উপজেলার মোকাম গ্রামের আব্দুল গফুরের মেয়ে।

এব্যাপারে নির্যাতনের শিকার সালমা এর শশুড় রফিকুল ইসলাম বলেন,দু’জনেই আমার পুত্রবধূ।ছোট পুত্রবধূ ঝগড়ার এক পর্যায়ে বড় বউয়ের শরীলে উত্তপ্ত গরম পানি ঢেলে দেয়। বড় বউয়ের পুরো শরীল ঝলসে গেছে।এটা খুবই হৃদয় বিদারক ঘটনা।বড় বউয়ের শরীলের প্রায় ৬০-৬৫ ভাগ জায়গা ঝলসে গেছে।আল্লাহ জানে বাঁচে নাকি মরে।  নির্যাতনের শিকার সালমার পিতা আব্দুল বারেক বলেন,সে আমার মেয়েকে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিয়েছে।বিনা কারনে আমার মেয়েকে উত্তপ্ত গরম পানি ঢেলে শরীল ঝলসে ফেলেছে। মৃত্যুর শঙ্কা রয়েছে।আমার মেয়ের স্বামী প্রবাসে থাকায় আমি বাদী হয়ে লিজা ও প্রতিবেশী ইব্রাহিমের স্ত্রী বিলকিস বেগমকে আসামী করে দেবিদ্বার থানায় মামলা করেছি। পুলিশ লিজাকে সাথে সাথে আটক করেছে।বিলকিস এখনো পালাতক।সালমা ও বিলকিস দু’জন আপন বোন।

এদিকে নির্যাতনের শিকার সালমা বেগমের বড় ছেলে হোসাইন বলেন,আমার আম্মাকে বিনা কারনে সব সময় চাচী নির্যাতন করতো।ঘটনার দিন সামান্য ডিমের কুসুম ফেলাকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটিয়েছে চাচী।আম্মার অবস্থা আশঙ্কাজনক।আমার ছোট এক ভাই ও বোন রয়েছে।আব্বু বিদেশ।আমরা এখন পুরো অসহায় হয়ে পড়েছি।আমি এ ঘটনার বিচার চাই।

এ বিষয়ে দেবিদ্বার থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আরিফুল ইসলাম বলেন,এ ঘটনায়  নির্যাতনের শিকার সালমার বাবা বারেক সাহেব বাদী হয়ে দুই জনকে আসামী করে মামলা করেছে।পুলিশ মূল আসামী লিজাকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরন করেছে।অপর আসামীকে ধরার চেষ্টা করছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  



ফেসবুকে আমরা