শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ১২:৫২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কুমিল্লা আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের উপপরিচালক নুরুল হুদা স্থানীয় সাংবাদিকের মোবাইল ফোনটি আটক রাখার অভিযোগ কুমিল্লায় একটি বাড়ি থেকে ৬শত পিস ইয়াবাসহ একজন মাদককাবারি আটক কুমিল্লায় কোচিং সেন্টারের শিক্ষার্থীদের ঘুমের ঔষধ খাইয়ে অজ্ঞান করে শারীরিক সর্ম্পক স্থাপন করার অভিযোগে একজন আটক র‍্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে প্রধান আসামি রাজু নিহতঃ কুমিল্লায় সাংবাদিক মহিউদ্দিন সরকার নাঈমের হত্যা মামলার আসামি ঈদকে সামনে রেখে কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা বেপরোয়া ভাবে নগরীর বিভিন্ন স্থানে ছিনতাইয়ের অভিযোগ কুমিল্লায় গাঁজাসহ এক মাদক ব্যবসায়ী আটক কুমিল্লায় পৃথক র‌্যাবের অভিযানে ৩ মাদক ব্যবসায়ী সাথে ৬ শত ফেন্সিডিল উদ্ধার কুমিল্লার ধুর্মপুর রেলওয়ে এলাকায় একপক্ষের হামলায় রবিন আহত কুমিল্লায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা-ভাংচুর ও লুটপাট কুমিল্লায় মাদক ব্যবসায়ী আবু জাফর গ্রেফতার
নোটিশ :

কুমিল্লা সদরে মাদকের অন্তরালে ইয়াবা মরন নেশার বিশাল হাঠ; আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দাবি মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধের ঘোষণা

এইচ এম ইকবালঃ

কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন ও সদরের বিভিন্ন ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডে মাদকের অন্তরালে  ইয়াবা মরন নেশার বিশাল হাঠে পরিনত হয়ে গেছে।এদিকে জেলা পুলিশ সুপার মো.ফারুক আহমেদ বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করার পর থেকে কুমিল্লা উপজেলা বিভিন্ন মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতার করে কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

জানা যায়,কুমিল্লা সিটির ১৬নং ওয়ার্ড নবগ্রাম ছাব্বির, রুবেল পিতাঃমৃতশাহজাহান,অনিম,অয়ন,অলি,রিপন, সাহিন বউবাজার,আরিফ ,সাইফুল বুড়ি পুকুরপাড়,হাবীব,রাকিব,সুমি আকতার,আকাশ ,রায়হান সালাম ইয়াবা ফেনসিডিল ইসকাপ পাইকারি ব্যবসায়ী। কুসিক ১৬নং ওয়ার্ড সংরাইশ মাদক কারবারি সাইফুল(চুকা),ইমতিয়াজ বিচ্চু,রবিউল, সাব্বির,মহসিন,আরিফ সুমন,মনজু বিবি ফেনসি আলেয়া পাপ্পুর মাদক ব্যবসা রমরমা।

দীর্ঘ অনুসন্ধানে প্রকাশ দুই ধরনের ব্যবসা মাদক গড ফাদার দের-একটি চোরাকারবারির চা মুদি ইত্যাদি,আরেক টি অবৈধ মাদক ব্যবসা! কুমিল্লা সদরের টিক্কাচর ব্রিজের পাশে মাদকের খুচরা বিক্রি। শালধর হিন্দু পাড়া এলাকায় সরজমিন অনুসন্ধানে দেখা যায় একাধীক বাড়ী বিপুল জমি জামার মালিক মাদকের ডন হিসেবে খ্যাত সেলিম। বহু মাদক মামলার আসামী সেলিম দোকানের অন্তরালে মরন নেশা ইয়াবা ফেনসিডিল ইসকাপ নামক মাদক বিক্রি করছে।ওই গ্রামের সাহাবউদ্দীন,সেলিম  ও তার স্ত্রী বহু রিকবারি মাদক মামলার আসামী সদ্য জেল ফেরত মাদক সম্রাজ্ঞী লুকু সেলিম ও সবুজ পিতা মোস্তফা,মনির ওরফে মাদক সম্রাট মনির।

স্থানীয় দের অভিযোগ পুলিশের সোর্স কে নিয়মিত টাকা দেয়ে গড ফাদার সেলিম, বাবুল,মনির মাদকের কারবার করতেছে।
মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ-সরকার জিরো টলারেন্সেূ শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ীরা সীমান্তের জিরো পয়েন্টে সরজমিন প্রকাশঃভয়ঙ্কর মাদকের বিরুদ্ধে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী শূন্য সহনশীলতায় দেশ ব্যাপী বিশেষ অভিযানে তালিকা ভুক্ত মাদক কারবারি সেন্ডিকেট নিরাপদে কুমিল্লা সীমান্তবর্তী নো ম্যান্স ল্যান্ডে! কুমিল্লা সীমান্ত থেকে অভিনব কৌশল অবলম্বন করে অবৈধ শাড়ী ও ভারতীয় মাদক মদ গাজা ফেনসিডিল ইয়াবা নামক মরন নেশা ও মেয়াদবিহীন ঔষধ যাচ্ছে কুমিল্লা হয়ে রাজধানী ঢাকা সহ দেশের বিভিন্ন স্থানে।
বিশাল চোরাকারবারির বিভিন্ন সেন্ডিকেট অবৈধ শাড়ী ব্যবসার অন্তরালে সর্বনাশা মাদকদ্রব্য বাংলাদেশে আনছে আর এ কাজে সংশ্লিষ্ট বিজিবি সহ পুলিশ কর্তারা পাচ্ছে টাকা!

সূত্র মতে আইন প্রয়োগ কারী দের জানানো হয় শুধু শাড়ী কসমেটিক জিরা চুক্তিতে কুমিল্লা আদর্শ সদরের ৫নং পাঁচথুবীর নিশ্চিন্তপুর সীমান্ত ফিলার নং ২০৭৮৬ঝ নো ম্যান্স ল্যান্ডে মাদকের হাট ফিলার নং ২০৭৮৪।
স্থানীয় একাধীক সূত্র জানান,দেশের শতাধিক মাদক কারবারি জিরো পয়েন্টে নিরাপদে রাজত্ব করতেছে।মাদক ব্যবসায়ী লাইন ম্যান ও সোর্স নিয়ন্ত্রণে পুরো জিরো পয়েন্ট।
বহু মামলার আসামীরা অবাধে অপরাধ সংগঠিত করছে ওই এলাকায়,মাবুল,লিটন,রাজ্জাক, খারশেদ,রফিক,মুতিনগরের আকতারওরফে ডন আকতার,মরু মিয়া,সরুফা,নাজু,শানু,আওয়াল,মনির,সাহীন বিশাল মাদক সেন্ডিকেট। গোলাবাড়ি দু দেশের পরিচর পত্র ব্যবহার করে অপরাধী মাদক চক্র,তালতলা মাদক ব্যবসা চলছে গোলাবাড়ী চেয়ারম্যান বাড়ী সংলগ্ন মাদকের বিশাল হাঠ।
ভারত বাংলাদেশ দু দেশেই প্রভাব :
গলা কাটা বাবুল,মিজান,তমিজ,ইলিয়াস তিন ভাই ভূইয়া বাড়ী ও বড় বাড়ী সংলগ্ন মাদকের বিশাল স্পট চলছে মাদক বিকিকিনি। ছাওয়াল পুর মাজার সংলগ্ন শাড়ীর নামে প্রতিদিন মাইক্রো পিকাপ,কবারভ্যান ও সিএনজি ভর্তি মাদকের বিশাল চালান আসছে। ইয়াবা সম্রাট রাডার মনির। ভারতের সীমান্ত এলাকার থেকেদ মাকের চালান যাচ্ছে।আর কিছু মাদক টাকা রাজনৈতিক নেতাদের পকেটে।সহযোগী বিষ্ণপুরের তাজু থাই ব্যবসার অন্তরালে কুচাইতলি সিসি ক্যামেরা নিয়ন্ত্রণে কড়া পাহারায় বিভিন্ন গ্রুপ চালায় সেখান ইয়াবার কারখানা এ প্রতিবেদক দীর্ঘ অনুসন্ধানে সূত্রের সাহায্যে বিভিন্ন  গ্রুপে ভিতরে যায়।বিবির বাজারের মাদক কারবারি লাইনম্যান জহির,মাদকের গডফাদার ইউনুছ,মোস্তফা মাদকের ডন দেশ ও যুব সমাজ নষ্ট করে মাদকদ্রব্য পাইকারি ব্যবসা করছে।

বিবির বাজার রাজমঙ্গল পুর ও কটক বাজার সীমান্তে মাদক ব্যবসা রমরমা, গাজীপুর,রাজমঙ্গলপুর মাদক সম্রাট আক্তার কুমিল্লা সদর উপজেলা  বিভিন্ন ইউনিয়ন বিভিন্ন এলাকা মাদক ব্যবসায়ী ও পুলিশের সোর্স হোসেনের স্ত্রীরা মাদক ব্যবসা চালাচ্ছে।মাদক কারবারি সেন্ডিকেট কৌশলঃপ্রতি রাস্তায় কড়া পাহারা দিয়ে এম্বুলেন্স,মাইক্রো,পিকাব,হাইএক্স ও কভারভ্যান,সিএনজি ও ট্রাকে করে কোটি টাকার মাদক পাচার করছে।

অনুসন্ধান শেষে কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন ও সদরের উপজেলার বিভিন্ন এলাকার মাদক ব্যবসায়ী ও চোরাকারবারিদের গডফাদারদের আটক করতে মাঠে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অফিসারা মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতার করতে কাজ করছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  



ফেসবুকে আমরা